বুক ভরা কষ্ট নিয়ে চলে গেলেন গীতা কাপুর

 

রক্তচাপ কমে যাওয়ার কারণে ২০১৭ সালের ২১ এপ্রিলে অভিনেত্রী গীতা কাপুরকে মুম্বাইয়ের এসআরভি হাসপাতালে ভর্তি করেছিলেন তার ছেলে রাজা। সেসময় হাসপাতালের বিল পরিশোধের জন্য এটিএম থেকে টাকা তুলতে যাচ্ছেন এমন কথা বলে হাসপাতাল থেকে বের হয়। কিন্তু আর ফিরে আসেন না

সেই ছেলেমেয়ের আশায় থেকে থেকে না ফেরার দেশে পাড়ি জমালেন অভিনেত্রী গীতা কাপুর

পাকিজা খ্যাত তারকা গীতা কাপুর বুকভরা কষ্ট নিয়ে না ফেরার দেশে চলে গেলেন। শনিবার (২৬ মে) মুম্বাইয়ের একটি বৃদ্ধাশ্রমে মারা যান তিনি। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিলো ৫৭ বছর

জুনিয়র আর্টিস্ট হিসেবে ছবিতে কাজ করতেন তিনি প্রায় ১০০ ছবিতে কাজ করেছেন এছাড়াপাকিজা মতো ছবিতেও অভিনয় করেছেন বলেও জানান তিনি

ছেলে রাজা তাকে অনেক মারধর করতো। চারদিনে শুধু এক বেলা খাবার দিতো। এমনকি মাঝে মধ্যে ঘরের মধ্যে আটকে রাখতো।

বিভিন্ন গণমাধ্যমে এমন কথা প্রকাশ হলে নির্মাতা অশোক পণ্ডিত তার চিকিৎসার সব দায়িত্ব নেন। হাসপাতালের সকল বিল পরিশোধ করে তাকে সুবারবানের একটি বৃদ্ধাশ্রমে নিয়ে গিয়েছিলেন তিনি। সেখানেই চলছিলো গীতার দেখভাল।

উইমেন জার্নাল/আরএস